1. news.ajkerkontho@gmail.com : Ajker Kontho : Ajker Kontho
  2. multicare.net@gmail.com : আজকের কন্ঠ :
মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:৩৩ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
পিতার লাশ বাড়িতে রেখেই অশ্রু জলে বুক ভাসিয়ে পরীক্ষার হলে ছেলে জেলা পরিষদ নির্বাচনে আ.লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী ভোট চেয়ে কাঁদলেন ভাঙ্গা উপজেলা সিপিপির বর্ধিত সভা ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত বোয়ালমারীতে জনপ্রতিনিধিদের সাথে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থীর মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ফরিদপুর জেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রতীক বরাদ্দ  বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের মাননীয় বিচারপতিকে ফরিদপুর জেলা আইনজীবী সমিতির পক্ষ থেকে সংবর্ধনা প্রদান  সমাজের সবক্ষেত্রেই সুবিচার নিশ্চিত করতে হবে – বিচারপতি মো: রেজাউল হাসান  পরিবেশ উন্নয়ন ফোরামের উদ্যোগে ফরিদপুরে বিশ্ব নদী দিবস পালন উপজেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত ভাঙ্গা উপজেলার বাজারে ভোক্তা অধিদপ্তরের বাজার অভিযান

চলতি আউশ ধানের মৌসুমী কৃষকের স্বপ্ন

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: শনিবার, ৬ আগস্ট, ২০২২
সত্য প্রকাশে নির্ভীক

নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলায় চলতি রোপা আউশ মৌসুমে ১৩ হাজার ১২০ হেক্টর জমিতে আউশ ধানের চাষ করা হয়েছে। চলতি বোরো মৌসুমে কৃষক ধানের উচ্চমূল্য পাওয়ায় আউশ ধান চাষে ঝুঁকে পড়েছে এ উপজেলার কৃষকরা।

এ ধান চাষ করে কৃষকরা একই জমিতে বছরে তিন ফসল উৎপাদন করছে। কৃষি বিভাগের ব্যাপক তৎপরতা এবং কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে প্রণোদনার সার, বীজ প্রদান করায় কৃষি ক্ষেত্রে এ পরিবর্তন আসতে শুরু করেছে। উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে এ উপজেলায় ১৩ হাজার ১২০ হেক্টর জমিতে আউশ ধানের চাষ করা হয়েছে।
আউশ ধান উৎপাদনের ক্ষেত্রে এ উপজেলা ২১০০ জন কৃষককে ইতোমধ্যে আউশ প্রণোদনা হিসেবে প্রত্যেক কৃষককে ৫ কেজি ধানবীজ, ২০ কেজি ডিএপি, ১০ কেজি এমওপি সার প্রদান করা হয়েছে। এ ছাড়া ৩৫ জন কৃষককে আউশ ধানের প্রদর্শনী দেওয়া হয়েছে।

ধানের বীজতলা থেকে ধানকাটা পর্যন্ত মাত্র ১০০ থেকে ১১০ দিন সময় লাগে আউশ ধান চাষে। পানি সেচ দেয়ার তেমন একটা দরকার হয় না বলে আউশ ধান আবাদে উৎপাদন খরচ কম। সেই সাথে কিটনাশক ও স্যার প্রয়োগ অন্যান্য ধান থেকে ৩০ থেকে ৪০ ভাগ কম হয়।

এ উপজেলায় উৎপাদিত ধান-চাল মহাদেবপুরের চাহিদা মিটিয়ে দেশের বিভিন্ন জেলার খাদ্য চাহিদা পুরনে সহযোগিতা করেন ।

সরেজমিনে এ উপজেলার সুজাইল, গোষাইপুর, হাসানপুর, চকরাজা, দাশড়া, সরস্বতীপুর, শ্যামপুর, খোর্দ্দনারায়নপুর, বাগধানা, নলবলো, ধনজইল চৌমাশিয়া ও রাইগাঁ সহ বিভিন্ন মাঠে গিয়ে দেখা গেছে আউশ ধানের শীষ বাতাসে দোল খাচ্ছে।

উপজেলার সুজাইল গ্রামের কৃষক আব্দুর রহিম, নাটশাল গ্রমের জাহেদুল ইসলামসহ বেশ কয়েকজন কৃষক জানান, ইরি ধানের দাম ভালো পাওয়ায় অধিক জমিতে আউশ ধান রোপন করেছেন। এখন আউশ ধান চাষের শেষ মুহুর্ত্বের পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে তারা।

এবার বোরো ধানের ভালো দাম পেয়ে আউশ ধান উৎপাদনে কৃষকের উৎসাহ উদ্দীপনা আরও বেড়ে গেছে। এ উপজেলার কৃষকরা চলতি আউশ মৌসুমে ব্যাপক জমিতে আউশ ধান চাষ করেছে।

এ বিষয়ে উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ অরুন চন্দ্র রায় জানান, চলতি আউশ মৌসুমে শুধুমাত্র মহাদেবপুর উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে ১৩হাজার ১২০ হেক্টর জমিতে আউশ ধানের চাষ করা হয়েছে।
ফসলের উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও কৃষিমন্ত্রীর আহ্বানে সাড়া দিয়ে এ উপজেলায় চাষ যোগ্য সকল জমিতে ফসল উৎপাদনের লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছি। আবহাওয়া অনুক‚লে থাকলে এবং বড় ধরনের কোন প্রাকৃতিক দূর্যোগ না দেখা দিলে আউশ ধানের বাম্পার ফলনের আশা ব্যাক্ত করছেন তিনি।

আজকের কন্ঠ

নওগাঁ

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

error: Content is protected !!