1. news.ajkerkontho@gmail.com : Ajker Kontho : Ajker Kontho
  2. multicare.net@gmail.com : আজকের কন্ঠ :
বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:৫০ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
সালথা উপজেলায় কমিউনিস্ট পার্টির কর্মি সভা অনুষ্ঠিত ফারিয়ার উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত সালথায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত মধুখালীর কোরকদি ইউনিয়ন পরিষদের দায়িত্ব ও কর্তব্য বিষয়ে অবহিতকরণ কর্মশালা বোয়ালমারীতে ইউনিয়ন পর্যায়ে টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট (এসডিজি) স্থানীয়করণ বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত নিয়ামতপুরে শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে নিরাপত্তা বিষয়ক মতবিনিময় সভা পিতার লাশ বাড়িতে রেখেই অশ্রু জলে বুক ভাসিয়ে পরীক্ষার হলে ছেলে জেলা পরিষদ নির্বাচনে আ.লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী ভোট চেয়ে কাঁদলেন ভাঙ্গা উপজেলা সিপিপির বর্ধিত সভা ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত বোয়ালমারীতে জনপ্রতিনিধিদের সাথে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থীর মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

জবা ফুল সৌন্দর্য বৃদ্ধি, পূজা ও ভেষজগুণে ভরপুর

Rabiul Hasan Rajib
  • প্রকাশিত: রবিবার, ১৯ জুন, ২০২২
সত্য প্রকাশে নির্ভীক

সনত চক্রবর্ত্তী: জবা ফুল সাধারণ পূঁজা অর্চনায় ছাড়া তেমন কোন কাজে আসে না।কিন্তু ভেষজ ও ঔষধিগুণে রয়েছে জবা ফুলেন দারুণ গুণ। এ ফুল গোলাপি, সাদা, লাল, হলুদ নানা বর্ণের হয়। বাংলাদেশের সর্বত্রই দেখা যায়। সাধারণত অনেকে শোভাবর্ধনকারী উদ্ভিদ হিসেবে বাড়ির আঙিনা কিংবা বাড়ির ছাদে জবা ফুলগাছ লাগিয়ে থাকেন ।

পরিচিতি : মালভেসি গোত্রের অন্তর্গত চিরসবুজ পুষ্পধারী গুল্ম এই জবা। উৎপত্তি পূর্ব এশিয়ায়। ১৭৫৩ সালে বিজ্ঞানী ক্যারোলাস লিনিয়াস এর নাম দেন ‘Hibiscus rosa-sinensis’। লাতিন শব্দে ‘rosa-sinensis’-এর অর্থ ‘চীন দেশের গোলাপ’। বাংলায় নাম রক্তজবা, জবা, জবা কুসুম।

বংশবিস্তার : জবার বংশবিস্তার হয় শাখা কলমের মাধ্যমে বা জবা গাছের ডাল বর্ষা কালে সেঁত স্যাঁতে মাটিতে রোপন করে সহজেই বংশবিস্তার করা সম্ভব। জবা গাছ আবাদী ও অনাবাদী বনজ সবধরনের হয়ে থাকে।

প্রায় সারা বছরই ফোটে এ ফুল। গাঢ় সবুজ পাতার ফাঁকে ফাঁকে থাকে। গাছের উচ্চতা প্রায় ৮ থেকে ১৬ ফুট। পাতাগুলো চকচকে সবুজ ও ফুলগুলো উজ্জ্বল এবং পাঁচটি পাপড়িযুক্ত। ফুলগুলোর ব্যাস গড়ে চার ইঞ্চি এবং সব সময় জবা ফুল দেখা যায়।কিন্তু গ্রীষ্ম, বর্ষা ও শরৎকালে সাধারণত বেশি জবা ফুল ফোটে।

ফরিদপুর জেলায় বিভিন্ন এলাকায় এলাকায় খোঁজ নিয়ে দেখা যায় জবা ফুল গাছের ডালে ডালে ছেয়ে গেছে ফুলে ফুলে। আর তার অপরূপ দৃশ্যে মুগ্ধ করছে সবাইকে।

বিশিষ্ট সাংবাদিক দীপঙ্কর পোদ্দার অপু বলেন, সাধারণত জবা ফুল হিন্দুদের কালী পূজাতে এই ফুল ব্যবহার হয়। তাই সাধারণত হিন্দু বড়িতে এই জবা ফুল গাছ দেখা যায়। এছাড়া সৌন্দর্য বর্ধক হিসাবে জবা ফুল গাছটি অনেকে রোপন করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

error: Content is protected !!