1. news.ajkerkontho@gmail.com : Ajker Kontho : Ajker Kontho
  2. multicare.net@gmail.com : আজকের কন্ঠ :
শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২, ০৭:০৬ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
ফরিদপুরে ৭দিন ব্যাপি ফ্রি চক্ষু ছানি ক্যাম্প ও মেডিকেল ক্যাম্প এর উদ্বোধন দুই মোটরসাইকেল মুখােমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল এক যুবকের ফরিদপুরে ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার শুভ উদ্বোধন ককটেল বিস্ফোরনে যুবলীগ-ছাত্রলীগের চার নেতা আহত রাতের অন্ধকারে পুকুর খননের মহোৎসব, হুমকির মুখে ফসলি জমি অনুমতি ছাড়াই আমেরিকা পাড়ি জমালেন ইউসুফদিয়া সঃপ্রাঃ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত সালথায় পতিত জমি চাষাবাদের আওতায় আনার উদ্যোগ গ্রহণ সালথায় লাবু চৌধুরীর সংবর্ধনা উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা গৃহবধূ নাজমা আক্তার পনেরো দিন যাবত নিখোঁজ রয়েছেন 

সালথায় কুমার নদে অবৈধ ড্রেজার দিয়ে বালু উত্তোলন: হুমকিতে কোটি টাকার সড়ক

Rabiul Hasan Rajib
  • প্রকাশিত: রবিবার, ২৯ মে, ২০২২
সত্য প্রকাশে নির্ভীক

নুরুল ইসলাম, বিশেষ প্রতিনিধি: ফরিদপুরের সালথায় ঐতিহ্যবাহী কুমার নদ থেকে অবৈধ ড্রেজার মেশিন দিয়ে অবাধে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। এতে নদের দুই পাড়ে থাকা কোটি কোটি ব্যয়ে নির্মাণ করা পাকা সড়ক চরম হুমকির মূখে পড়েছে। যে কোন সময় সড়কটি ভেঙ্গে নদের ভিতর পড়ে যাওয়ার বা সড়কের ফাটল ধরার আশঙ্কা করছেন স্থানীরা।

কুমার নদের দুই পাড়ের বাসিন্দারা অভিযোগ করে বলেন- মাত্র কয়েক মাস আগে কোটি কোটি টাকার খরচ করে নদের দুই পাড়ে থাকা পাকা সড়ক সংস্কার করেন কর্তৃপক্ষ। সেই সড়ক দুটি এখন চরম ঝুঁকিতে। কারণ কয়েক মাস আগে নদটি খনন করেন পানি উন্নয়ন বোর্ড। নদ খননের পর দুই পাড় ধ্বসের আশঙ্কায় রয়েছে এমনিতেই। এরমধ্যে আবার নতুন করে কয়েক দিন ধরে নদের ভিতর অবৈধ ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন করে বিক্রি করছেন একটি মহল।

কিছুদিন আগে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়- মাঝারদিয়া ইউয়িনের কুমারপট্টি এলাকায় কুমার নদের ভিতর অবৈধ ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন করছেন দুলাল নামে এক ড্রেজার মালিক। তখন তিনি বলেছিলেন- ইউএনওর নির্দেশে বালু উত্তোলন করে সরকারি ঘর নির্মাণের কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে। তবে এই ড্রেজার মেশিনটি দিয়ে এখন বালু উত্তোলন বন্ধ রয়েছে।

শুক্রবার সকালে গট্টি ইউনিয়নের জয়ঝাপ গ্রামের ইমাম বাড়ির সামনে গিয়ে দেখা যায়- কুমার নদের মাঝে অবৈধ ড্রেজার মেশিন বালু উত্তোলন করে আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘরে দিচ্ছেন খোকন নামে এক ড্রেজার মালিক। বালু উত্তোলনের বিষয় ফোনে তার সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

উপজেলা প্রকৌশলী তৌহিদুর রহমান বলেন- সড়কের পাশে কুমার নদে যেখানে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে, সেখানে আমি এখনই লোক পাঠাচ্ছি। বালু উত্তোলনের ফলে যদি সড়ক ঝুঁকিপূর্ণ হলে বিষয়টি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে অগবত করবো।
বিষয়টি নিয়ে বক্তব্য নেয়ার জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছা: তাছলিমা আক্তারকে ফোন করা হলে তিনি ফোন কেটে দেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

error: Content is protected !!