1. alamgirfpur@gmail.com : Alamgir Hossen : Alamgir Hossen
  2. jakirsaltha@gmail.com : Jakir Hosen : Jakir Hosen
  3. rjillur86@gmail.com : Jillur Rahman : Jillur Rahman
  4. ridoyshil2525@gmail.com : Ridoy Shil : Ridoy Shil
  5. multicare.net@gmail.com : আজকের কন্ঠ :
বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২, ০৭:৪৬ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
ঈদ উপলক্ষে মহাসড়কে যানজট মুক্ত রাখার জন্য করিমপুর হাইওয়ে থানার বিভিন্ন পদক্ষেপ একশত বোতল ফেনসিডিলসহ আটক ২ যুবক কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচি হিসেবে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ টিসিবির পণ্য সামগ্রী বিক্রয় কর্মসূচি চলছে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারে আর্থিক সহায়তা ও চাল বিতরন তিন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ও পত্রিকার সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন সড়ক অবরোধ খাদ্যের সন্ধানে লোকালয়ে মুখপোড়া হনুমান যুবককে কুপিয়ে হত্যা করল দুর্বৃত্তরা ফরিদপুরে ইউনিয়ন ওয়ার্ড পর্যায়ে টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট স্থানীয়করণ অনুশীলন অনুষ্ঠিত বিদ্যালয় মাঠে গরু-ছাগলের হাট: ৩২ বছর পর বন্ধ করলেন প্রশাসন

পঞ্চগড়ে দুই প্রেমিকার বিয়ে এক প্রেমিকের সাথে, এলাকায় তোলপাড়

Rabiul Hasan Rajib
  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ২২ এপ্রিল, ২০২২
সত্য প্রকাশে নির্ভীক

জেলা প্রতিনিধিঃ পঞ্চগড় জেলার আটোয়ারী উপজেলায় বলরামপুর ইউনিয়নের লক্ষীদ্বার গ্রামে এক প্রেমিকের সাথে দুই প্রেমিকার বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।

লক্ষীদ্বার এলাকার যামিনী চন্দ্রের ছেলে রোহিনী চন্দ্র রনি (২৫) এর সাথে উত্তর বলরামপুর (গাঠিয়া পাড়া) গিরিশ চন্দ্রের মেয়ে ইতি রানি (২০) ও উত্তর লক্ষীদ্বারের টনো কিশোর রায়ের মেয়ে মমতা রানির সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। দীর্ঘদিন ধরে চলে তাদের প্রেমের সম্পর্ক। এক পর্যায়ে তাদের দুই প্রেমিকের সাথেই বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।

স্থানীয় ভাবে জানা যায়, ইতি রানির সাথে তিন বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। প্রেমের সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে অবশেষে ছয় মাস আগে তারা উভয়ে মন্দিরে গোপনে বিয়ে করে। বিয়ে করার পরেও মমতা রানির সাথে গোপনে প্রেমের সম্পর্ক চালাতে থাকে।

চলতি মাসের ১২ তারিখের রাতে মমতা রানির সাথে দেখা করতে গেলে এলাকাবাসী দেখে ফেলে। সাথে সাথেই সন্দেহপূর্বক আটক করে রাখে এবং পরে এলাকাবাসি জানতে পারে মমতা রানির সাথে প্রায় ৫ মাস ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলছে। এর জের ধরে রনিকে আটক করে রাখে মমতার বাড়ির লোকজন।

এদিকে সকালে ইতি রানি খবর পেয়ে রনির বাড়িতে এসে অনশন শুরু করে। আর মমতার বাড়ির লোকজন এই খবর শুনে মমতা ও রনিকে কোর্টে নিয়ে আইনজীবীর মাধ্যমে এফিডেফিট করে নিয়ে আসে। এভাবে সারাদিন চলার পর এলাকাবাসী রাতে বলরামপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান দেলয়ার হোসেনের সরনাপন্ন হন। দুই মেয়েপক্ষ ও ছেলেপক্ষ এ ঘটনার সমাধান চান। পরে ইউপি চেয়ারম্যান স্থানীয়ভাবে সালিশের আয়োজন করে। শালিসে চেয়ারম্যান ছেলে মেয়েকে হাজির করান।

এদিকে মমতার বাড়ির লোকজন পুরহিত ডেকে মমতার সাথে রনির বিয়ে দিয়ে দেন। বিয়ের দুইদিন পরে রনি মমতাকে নিয়ে তার নিজের বাড়িতে নিয়ে যায়। এরপর প্রেমিক রনির বাবা মা গতকাল বুধবার রনির সাথে দুই প্রেমিকা ইতি রানি ও মমতা রানির বিয়ে সম্পন্ন করেন।

এঘটনা পুরো উপজেলায় চাঞ্চল্যকর সৃষ্টি করেছে। তাদেরকে দেখার জন্য রনির বাড়িতে উৎসুক লোকেরা ভীড় করছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
error: Content is protected !!