1. news.ajkerkontho@gmail.com : Ajker Kontho : Ajker Kontho
  2. multicare.net@gmail.com : আজকের কন্ঠ :
সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১২:০৭ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
সেভ দ্য ফিউচার ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে পথশিশুদের মাঝে খাবার বিতরন জেলা পরিষদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীর নির্বাচন পরিচালনা কমিটির মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত দুই হাজার কোটি টাকা মানিলন্ডারিং মামলার আসামী সাইফুলকে কারাগারে প্রেরণ ফরিদপুরে ব্যতিক্রমী পূজা দেখতে দর্শনার্থীদের ভিড়, এক মন্দিরে তিনশত একটি প্রতিমা বসন্তপুর যুব সংঘের উদ্যোগে ফাইনাল ফুটবল খেলা অনুষ্ঠিত জেলা ভোক্তা অধিদপ্তরের বাজার অভিযান ঐতিহ্যবাহী ঈঁশান বাবু বাড়ীর ১৪৫ তম দুর্গোৎসব ফরিদপুরে আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবস পালন বিষাক্ত সাপে কামড়ের ৩দিন পর কৃষকের মৃত্যু খানখানাপুরে নির্মাণ শ্রমিকদের সাথে স্বপ্ননীড় কনসাল্টের সাথে মত বিনিময়ে সভা অনুষ্ঠিত

কালকিনিতে নেশার টাকা না পেয়ে যুবকের আত্মহত্যা

Rabiul Hasan Rajib
  • প্রকাশিত: রবিবার, ১০ এপ্রিল, ২০২২
সত্য প্রকাশে নির্ভীক

রকিবুজ্জামান, মাদারীপুর প্রতিনিধি: মাদারীপুরের কালকিনিতে নেশার টাকা না পেয়ে রুবেল সরদার (৩৪) নামে এক যুবক আত্মহত্যা করেছে।

রবিবার সকালে নিজ ঘরের ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করে কালকিনি থানা পুলিশ। নিহত রুবেল কালকিনি উপজেলার কয়ারিয়া ইউনিয়নের বড়চর কয়ারিয়া গ্রামের খালেক সরদারের একমাত্র ছেলে।

সরোজমিন ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়,নিহত রুবেল মাদকাসক্ত ছিল। সে বিভিন্ন সময়ে নেশার টাকার জন্য পরিবারের সাথে কলহ সৃষ্টি করত। ইতিপূর্বে মাদক থেকে নিরাময়ের জন্য তাকে দুই বারে মোট ৬ মাস ঢাকা রিহ্যাব সেন্টারে রাখা হয়। সেখান থেকে ফিরে এসে পুনরায় সে মাদকাসক্ত হয়ে পড়ে। সর্বশেষ গতকাল রাতে নেশার টাকার জন্য সে পরিবারের লোকজনের সাথে ঝগরা করে। পরে টাকা না পেয়ে সে একা একটি কক্ষে ঘুমাতে চলে যায়।ভোররাতে তার স্ত্রী মহিমা বেগম সেহরি খেতে উঠে ঘরের দরজা বন্ধ পেয়ে অনেক ডাকাডাকি করে সাড়া শব্দ না পাওয়ায় জানালা দিয়ে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় রুবেলকে দেখতে পায়। পরে আশেপাশের লোকজনকে ডাক দিলে তারা এসে দরজা ভেঙে রুবেলের লাশ উদ্ধার করে।

এ ব্যাপারে রুবেলের চাচতো ভাই সোহান সরদার বলেন, গতকাল নেশার টাকার জন্য পরিবারের সাথে রুবেলের ঝগরা হয়। পরে আমরা এসে রুবেলকে শান্ত করি। ভোররাতে রুবেলের স্ত্রীর চিৎকারে ঘুম থেকে উঠে এসে রুবেলকে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পাই। পরে আমরা দরজা ভেঙে রুবেলকে উদ্ধার করি। কিন্তু অনেকক্ষণ যাবৎ ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে থাকায় অনেক আগেই তার মৃত্যু হয়।

রুবেলের চাচা আল-আমিন সর্দার বলেন, রুবেল অনেকটা বেপরোয়া ছিল। সে কারও কথা শুনতো না। নেশাগ্রস্ত হওয়ার কারণে মানসিকভাবে সে অনেকটা ভারসাম্যহীন হয়ে পড়ে। গতকাল রাতে নেশার টাকা না পেয়ে সে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে আত্মহত্যা করে।

এ ব্যাপারে কালকিন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইশতিয়াক আশফাক রাসেল জানান, আত্মহত্যার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।পরিবারের কারও কোনো অভিযোগ না থাকায় এখনো কোন মামলা দায়ের করা হয়নি।তবে অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

error: Content is protected !!