1. news.ajkerkontho@gmail.com : Ajker Kontho : Ajker Kontho
  2. multicare.net@gmail.com : আজকের কন্ঠ :
মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ০৬:০৯ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
স্কুল ছাত্রীর লাশ তালাবদ্ধ বাথরুম ভেঙে উদ্ধার আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘরে চাঁদাবাজি, আটক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের স্বামী সালথায় যথাযথ মর্যাদায় জাতীয় শোক দিবস পালিত জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় ফরিদপুর আঞ্চলিক কেন্দ্রের শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন জাতির পিতাকে হত্যার পর তার নাম মুছে ফেলার চেষ্টা করা হয়েছিল- লাবু চৌধুরী বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন খাদ্যমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা সাধন চন্দ্র মজুমদারের শোক বাণী মেয়ের প্রেম লীলায় মা না ফেরার দেশে সড়ক দুর্ঘটনায় দম্পতির প্রাণ গেল জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে সালথার দলীয় নেতাদের সাথে মতবিনিময় করলেন লাবু চৌধুরী

ফরিদপুরে গর্তের ভিতর বিষটোপ দিয়ে নিরাপদে ইঁদুর দমন কার্যক্রমের উপর মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত

Rabiul Hasan Rajib
  • প্রকাশিত: রবিবার, ৬ মার্চ, ২০২২
সত্য প্রকাশে নির্ভীক

নিরঞ্জন মিত্র নিরুঃ সরেজমিন গবেষণা বিভাগ (সগবি), বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বারি), ফরিদপুর এর সহযোগিতায় অনিষ্টকারী মেরুদন্ডী প্রাণী বিভাগ, বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট, গাজীপুর এর বাস্তবায়নে গত (২ মার্চ) বুধবার ফরিদপুর সদর উপজেলার কানাইপুর ইউনিয়নের বসুনরসিংহদিয়া গ্রামে গর্তের ভিতর বিষটোপ দিয়ে নিরাপদে ইঁদুর দমন কার্যক্রমের উপর মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা, এ.এফ.এম. রুহুল কুদ্দুস এর সঞ্চালনায় মাঠ দিবস অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ত্ব করেন ফরিদপুর সরেজমিন গবেষণা বিভাগ (বারি) অঞ্চল প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. সেলিম আহম্মেদ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট, গাজীপুর এর অনিষ্টকারী মেরুদন্ডী প্রাণী বিভাগের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ও বিভাগীয় প্রধান ড. মো. শাহ আলম।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ফরিদপুর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর জেলা প্রশিক্ষণ কর্মকর্তা এ কে এম হাসিবুল হাসান।

এছাড়া উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট, গাজীপুর এর অনিষ্টকারী মেরুদন্ডী প্রাণী বিভাগের ঊর্ধ্বতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. আবু তৈয়ব মুহাম্মদ হাসানুজ্জামান, সিমিট বাংলাদেশ ফরিদপুরের কৃষি উন্নয়ন কর্মকর্তা কৃষিবিদ মো. শহিদুল আলম।

এসময় অনুষ্ঠানে সংশ্লিষ্ট বৈজ্ঞানিক সহকারীগণ সহ মাঠ দিবসে সংশ্লিষ্ট গ্রাম ও পার্শ্ববর্তী গ্রাম থেকে আগত প্রায় ৫০ জন কৃষক কিষানী উপস্থিত ছিলেন।

মাঠ দিবসে উপস্থিত অতিথিবৃন্দ পূর্বে স্থাপিত গর্তের ভিতর বিষটোপ দ্বারা সরিষা ও গম প্লট পরিদর্শন করেন এবং বিভিন্ন দিক নির্দেশনা প্রদান করেন। নতুন কৃষকদের হাতে কলমে গর্তের ভিতর বিষটোপ প্রয়োগ পদ্ধতি হাতে কলমে দেখানো হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে ইঁদুরের বিভিন্ন দমন পদ্ধতি সম্পর্কে আলোচনা করেন। তিনি বলেন, বিষ ব্যবহার করে ইঁদুর দমন শেষ চেষ্টা হিসেবে ব্যবহার করতে হবে। সাধারনত দুই ধরনের বিষ ব্যবহৃত হয়। একটি তীব্র বিষ যা খেলে ইঁদুর সাথে সাথে মরে যায়, যেমন- ব্রোমাডিওলন। এগুলো বিভিন্ন নামে বাজারে পাওয়া যায়। প্রথমে সতেজ গর্তের মুখের মাটি সরিয়ে পরিষ্কার করে নিতে হবে। এর পর সাদা কাগজে ৫ গ্রাম (প্রায়) বিষ নিয়ে মুড়িয়ে পুটলি করতে হবে এবং এটাকে গর্তের ভিতর প্রায় ১ ফিট পর্যন্ত ঢুকিয়ে দিতে হবে। অতপর হাত দিয়ে মাটির গোলা বানিয়ে সেটা দিয়ে গর্তের মুখ বন্ধ করে দিতে হবে। এভাবে বিষ ব্যবহার করলে এটা যেমন পরিবেশের জন্য কম ক্ষতিকর, তেমনি গৃহপালিত বা অন্যান্য উপকারী প্রাণীর কোন ক্ষতি হয় না। এ ক্ষেত্রে ইঁদুর দমনে সফলতাও অনেক বেশি। দ্বিতীয়ত গ্যাস বড়ি দিয়ে ইঁদুর দমন। এক ধরনের গ্যাস বড়ি দিয়েও ইঁদুর দমন করা যায়, যেমন এ্যালুমিনিয়াম ফসফাইড ট্যাবলেট। বিষ ব্যবহারের ক্ষেত্রে সর্তক থাকতে হবে যেন, গৃহপালিত বা অন্যান্য উপকারী প্রানীর কোন ক্ষতি না হয়। তবে, কোন একক পদ্ধতি ব্যবহারে ইঁদুর দমনে শতভাগ সফলতা নাও আসতে পারে তাই সমন্বিত পদ্ধতিতে ইঁদুর দমন করার কথা বক্তারা বলেন। কারণ এ ক্ষেত্রে দুই বা ততোধিক পদ্ধতি সম্মিলিত ভাবে ব্যবহার করলে ভালো ফল পাওয়া যায়। দেখা গেছে যে, সঠিক নিয়মে ফাঁদ ব্যবহার এবং গর্তে বিষ প্রয়োগ পদ্ধতি পর্যায়ক্রমে ব্যবহারে ইঁদুর দমনে প্রায় ৮০ ভাগ পর্যন্ত সফলতা পাওয়া যায়। সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টার উপর ইঁদুর দমনের সফলতা নির্ভর করে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

error: Content is protected !!