1. news.ajkerkontho@gmail.com : Ajker Kontho : Ajker Kontho
  2. multicare.net@gmail.com : আজকের কন্ঠ :
বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:০৭ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
সালথা উপজেলায় কমিউনিস্ট পার্টির কর্মি সভা অনুষ্ঠিত ফারিয়ার উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত সালথায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত মধুখালীর কোরকদি ইউনিয়ন পরিষদের দায়িত্ব ও কর্তব্য বিষয়ে অবহিতকরণ কর্মশালা বোয়ালমারীতে ইউনিয়ন পর্যায়ে টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট (এসডিজি) স্থানীয়করণ বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত নিয়ামতপুরে শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে নিরাপত্তা বিষয়ক মতবিনিময় সভা পিতার লাশ বাড়িতে রেখেই অশ্রু জলে বুক ভাসিয়ে পরীক্ষার হলে ছেলে জেলা পরিষদ নির্বাচনে আ.লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী ভোট চেয়ে কাঁদলেন ভাঙ্গা উপজেলা সিপিপির বর্ধিত সভা ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত বোয়ালমারীতে জনপ্রতিনিধিদের সাথে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থীর মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

মাদারীপুরের কালকিনিতে স্বামীর সাথে ফোনে ঝগড়া করে গৃহবধুর আত্মহত্যা

Rabiul Hasan Rajib
  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ৭ জানুয়ারী, ২০২২
সত্য প্রকাশে নির্ভীক

রকিবুজ্জামান, মাদারীপুর প্রতিনিধিঃ মাদারীপুরের কালকিনিতে স্বামীর সাথে মোবাইলে ঝগড়া করে খাদিজা বেগম (২৪) নামের এক গৃহবধূ গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

শুক্রবার (৭ জানুয়ারী) সকালে কালকিনি থানা পুলিশ নিহত গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করেছে।

পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, কালকিনি উপজেলার সিডিখান এলাকার নতুন চরদৌলত খান গ্রামের কামাল বেপারীর মেয়ে খাদিজা বেগমের সাথে একই গ্রামের মোনাব্বর খানের ছেলে মোঃ হাসান খানের প্রায় ৪ বছর আগে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। তাদের সংসারে ৩ বছরের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। এদিকে বিয়ের সময় স্বর্ণালংকারসহ নগদ অর্থ প্রদান করেন ওই গৃহবধূর পরিবার। এরপর বিভিন্ন সময় পুনঃরায় যৌতুকের জন্য তার বাবার কাছ থেকে টাকা নেয়ার জন্য নিহত গৃহবধূর স্বামী ও শশুর বাড়ির লোকজন মানুষিক ও শারিরিকভাবে নির্যাতন করে আসছে। এ নির্যাতন সইতে না পেরে গত কয়েক দিন পূর্বে ওই গৃহবধূ তার বাবার বাড়িতে চলে আসেন। কিন্তু বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ওই গৃহবধূর স্বামী হাসান খান ঢাকা থেকে তাকে মোবাইল করে যৌতুকের টাকা নিয়ে তাদের বাড়িতে যেতে বলেন। এ নিয়ে স্বামী ও স্ত্রীর মাঝে ফোনে তর্ক-বিতর্ক হয়। এক পর্যায়ে জ্বালা সইতে না পেরে গৃহবধূ খাদিজা বেগম নিজ ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

খবর পেয়ে কালকিনি থানার এসআই রাজিব চন্দ্র সাহা সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে শুক্রবার সকালে নিহত গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেন। পরে ময়না তদন্তের জন্য মরদেহ সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করা হয়। এ ঘটনার পর থেকেই ওই গৃহবধূর শশুড়বাড়ির লোকজন পলাতক রয়েছে।

নিহত গৃহবধূর পিতা কামাল বেপারী বলেন, বিয়ের সময় আমার মেয়ে জামাইকে স্বর্ণালঙ্কারসহ নগদ টাকা দিয়েছি। সে এখন আবার পুনঃরায় টাকা দাবী করতেছে। আমি গরীব মানুষ টাকা কোথা থেকে দিব? এ দাবীকৃত টাকা নিয়ে ফোনে আমার মেয়ে ও জামাই ঝগড়া করেন। এর জের ধরে আমার মেয়ে আত্মহত্যা করেছে। আমার মেয়েকে টাকার জন্য তার স্বামী ও শশুর বাড়ির লোকজন মানুষিক ও শারিরিকভাবে নির্যাতন করতো। তাই আমি জামাইসহ তার পরিবারের নামে মামলা করবো।

সিডিখান ইউপি চেয়ারম্যান চানমিয়া শিকদার জানান, আমি আত্মহত্যার খবর পেয়েছি। পারিবারিক বিভিন্ন ঝামেলা নিয়ে অভিমান করে খাদিজা আত্মহত্যা করেছে বলে শুনেছি।

এ ব্যাপারে কালকিনি থানার ওসি (তদন্ত) মোঃ নাসিরউদ্দিন বলেন, আমরা খবর পেয়ে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মাদারীপুর মর্গে প্রেরন করেছি। তদন্ত স্বাপেক্ষে পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। তবে নিহতের পরিবার মামলা করলে মামলা নেয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

error: Content is protected !!