1. news.ajkerkontho@gmail.com : Ajker Kontho : Ajker Kontho
  2. multicare.net@gmail.com : আজকের কন্ঠ :
মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৭:২৮ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
পিতার লাশ বাড়িতে রেখেই অশ্রু জলে বুক ভাসিয়ে পরীক্ষার হলে ছেলে জেলা পরিষদ নির্বাচনে আ.লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী ভোট চেয়ে কাঁদলেন ভাঙ্গা উপজেলা সিপিপির বর্ধিত সভা ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত বোয়ালমারীতে জনপ্রতিনিধিদের সাথে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থীর মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ফরিদপুর জেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রতীক বরাদ্দ  বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের মাননীয় বিচারপতিকে ফরিদপুর জেলা আইনজীবী সমিতির পক্ষ থেকে সংবর্ধনা প্রদান  সমাজের সবক্ষেত্রেই সুবিচার নিশ্চিত করতে হবে – বিচারপতি মো: রেজাউল হাসান  পরিবেশ উন্নয়ন ফোরামের উদ্যোগে ফরিদপুরে বিশ্ব নদী দিবস পালন উপজেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত ভাঙ্গা উপজেলার বাজারে ভোক্তা অধিদপ্তরের বাজার অভিযান

পূর্ব শত্রুতার জেরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে শতাধিক বোমা বিস্ফোরণ; আহত অন্তত ১৫

Rabiul Hasan Rajib
  • প্রকাশিত: শনিবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০২১
সত্য প্রকাশে নির্ভীক
রকিবুজ্জামান,মাদারীপুর প্রতিনিধিঃ মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার পূর্ব এনায়েতনগর গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আপাং কাজির গ্রুপ এবং কবির খা গ্রুপের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।
শনিবার (১৮ ডিসেম্বর) সকাল থেকেই উভয় পক্ষের সমর্থকরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পরে। এসময় ব্যাপক গোলাগুলি সহ প্রায় শতাধিক বোমা বিস্ফোরণ হয়। এ ঘটনায় অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত ৩০ জুলাই মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলায় ঘরে ঢুকে ঘুমন্ত বাবা-ছেলেকে কুপিয়ে জখম করার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় মিরাজ হোসেনের পা বিচ্ছিন্ন করে নিয়ে যায় আপং কাজীর লোকজন। পরে মিরাজের ভাই কবির খাঁ বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন। এতে আপাং কাজীসহ ৩৫ জনের নামে ও অজ্ঞাতনামা আরও ১০ থেকে ১৫ জনকে আসামি করা হয়। মামলার আসামিদের নামে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।
পরে কালকিনি থানা পুলিশ মামলার আসামিদের গ্রেফতার করার জন্য ওই এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ১৪ ডিসেম্বর পা কাটা মামলার বাদীর চাচা একই এলাকার তিতাই খানের ছেলে লিয়াকত খানের দুই পা হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে ভেঙে দেয় আসামিরা। স্থানীয় লোকজন আহত কৃষককে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। পরে সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়।
উক্ত ঘটনার পর থেকেই উভয় পক্ষের লোকজনের সঙ্গে বিরোধ চলে আসছিল। তারই জের ধরে শনিবার সকাল থেকে ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে আমপাং কাজি গ্রুপের শহিদুল কাজী, জাহাঙ্গীর বেপারী, সুমন তালুকদার, মিরাজুল কাজী সহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়।গোলাগুলি সহ বোমা বিস্ফোরন হওয়ায় পুরো এলাকায় থমথমে পরিবেশ তৈরি হওয়ায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পুলিশের পক্ষ থেকে এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক করা হয়েছে।
কালকিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা.আনিকা তাছনিম জানান, আমাদের এখানে বোমা হামলায় আহত কয়েকজন রোগী এসেছে। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকা মেডিকেলে রেফার করা হয়েছে।
মাদারীপুর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার চাইলাউ মারমা জানান, পিছনের একটি ঘটনা নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে, আমরা অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করেছি,তাছাড়া বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

error: Content is protected !!