1. news.ajkerkontho@gmail.com : Ajker Kontho : Ajker Kontho
  2. rjillur86@gmail.com : Jillur Rahman Russell : Jillur Rahman Russell
  3. sklablu6580@gmail.com : Lablu Shek : Lablu Shek
  4. multicare.net@gmail.com : আজকের কন্ঠ :
শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ১০:০৯ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে পালিত হলো মেগচামী এক্সপ্রেস সংগঠনের ৫ ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তা পরিচয়ে প্রতারনা, যুবকের জেল পুলিশের অভিযানে দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার ফরিদপুরে শেখ কামাল আন্তঃস্কুল ও মাদ্রাসা অ্যাথলেটিকস্ প্রতিযোগিতা শুরু শাহানা ফাউন্ডেশন মাদ্রাসা ছাত্রদের মাঝে শীত বস্ত্র বিতরণ  বহুরূপী হাবিবুর রহমান হারুন এর ফাঁদে মানু ফরিদপুর প্রকাশ্যে ফিল্মি স্টাইলে প্রবাসীর উপর সন্ত্রাসী হামলা চরভদ্রাসনে জমি জবর দখলের অভিযোগ! আনোয়ারা-মান্নান বেগ ফাউন্ডেশন কর্তৃক শীতকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতা পুরুষ্কার বিতরনের মাধ্যমে সমাপ্ত ইয়াং টাইগার্স অনূর্ধ্ব ১৬ ক্রিকেট টুর্নামেন্টে ঢাকা জেলা দল চ্যাম্পিয়ন

মেয়ের প্রেম লীলায় মা না ফেরার দেশে

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: রবিবার, ১৪ আগস্ট, ২০২২
সত্য প্রকাশে নির্ভীক

নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলায় (১৩) বছরের এক কিশোরীর আপত্তিকর স্হানে কতিপয় কিছু লোক দেখতে পাওয়াই ঘটনাটি, ছড়িয়ে পড়ে ৯ আগস্ট মঙ্গলবার অভিযোগ উঠেছে শ্রী সুমন বর্মন (২২) নামে এর বিরুদ্ধে।

বিসয়টি মীমাংসা করতে গিয়ে ইউপি সদস্যের উপস্থিতিতে কিশোরীর ইজ্জতের মূল্য নির্ধারণ করা হয় ১ লাখ টাকা।

নিয়ামতপুর উপজেলার ভাবিচা ইউনিয়নের ভূলাপুকুর এক পরিত্যক্ত ভাঙ্গা বাড়িতে এ ঘটনাটি ঘটে। শ্রী সুমন বর্মন (২২) নিয়মতপুর উপজেলার কোদালি সহর গ্রামের শ্রী সোনা বর্মন এর ছেলে।

ভুক্তভোগী কিশোরীর অভিযোগ, করে
বলেন আমি চন্দননগর স্কুলের ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থী আমি প্রতিদিন স্কুলে যাই যাওয়া এবং আসার পথে তার কচমেটিক দোকান টি চোখে পড়ে সেই থেকে তার দোকান হইতে কেনা কাটা শুরু হয় তার পর থেকে ভাব বিনিময়ে চেষ্টা করে সুমন বর্মন
কিশোরীর বাবা (নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক) বলেন, আমার স্ত্রী অসুস্থ হওয়াই আমি ব্যস্ত ছিলাম। বাড়ি ফিরে লোকজনের মুখে এ খবর শুনি। আমাকে বিষয়টি নিয়ে বাড়াবাড়ি না করে স্থানীয়ভাবে আপোষ মীমাংসার কথা বলে  ইউপি সদস্যরা বলেন অন্যথায় ধর্ষণের ঘটনা জানাজানি হলে মেয়ের বিয়ে দিতে পারবে না আমি গরিব মানুষ আইন আদালত বুঝি না তাই আপোষ মীমাংসার জন্য রাজি হয়েছি।

ইউপি সদস্যরা ঘটনাটি স্পর্শকাতর হওয়ায় মেয়েটির ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে সামাজিকভাবে ইউনিয়ন পরিষদের ইউ, পি সদস্যরা মীমাংসা করে দেন।

এসময় হঠাৎ করে স্হানীয় সূত্রে জানা যায় ১২ আগস্ট শুক্রবার মেয়ের মা, না ফেরার দেশে চলে যায়।

এ বিষয়ে নিয়ামতপুর থানার অফিসার ইনচার্জ হুমায়ুন কবির বলেন, ধর্ষণের বিষয়ে এখন পর্যন্ত থানায় কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তারপরও খোঁজখবর নিচ্ছি ঘটনা যদি সত্য হয় তাহলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আজকের কন্ঠ

নওগাঁ

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট
error: Content is protected !!