1. news.ajkerkontho@gmail.com : Ajker Kontho : Ajker Kontho
  2. rjillur86@gmail.com : Jillur Rahman Russell : Jillur Rahman Russell
  3. sklablu6580@gmail.com : Lablu Shek : Lablu Shek
  4. multicare.net@gmail.com : আজকের কন্ঠ :
শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ১১:১২ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
শেখ কামাল আন্তঃস্কুল ও মাদ্রাসা অ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত ফরিদপুর কেবিএস বাহিনীর প্রধান শিপন মিয়া গোয়েন্দা পুলিশের হাতে গ্রেফতার নগরকান্দায় দেশীয় অস্ত্র সমর্পণে উদ্বুদ্ধকরণ সভা নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে পালিত হলো মেগচামী এক্সপ্রেস সংগঠনের ৫ ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তা পরিচয়ে প্রতারনা, যুবকের জেল পুলিশের অভিযানে দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার ফরিদপুরে শেখ কামাল আন্তঃস্কুল ও মাদ্রাসা অ্যাথলেটিকস্ প্রতিযোগিতা শুরু শাহানা ফাউন্ডেশন মাদ্রাসা ছাত্রদের মাঝে শীত বস্ত্র বিতরণ  বহুরূপী হাবিবুর রহমান হারুন এর ফাঁদে মানু ফরিদপুর প্রকাশ্যে ফিল্মি স্টাইলে প্রবাসীর উপর সন্ত্রাসী হামলা

অনাবৃষ্টিতে আউশের মাঠ ফেটে চৌচির

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: সোমবার, ১৮ জুলাই, ২০২২
সত্য প্রকাশে নির্ভীক

নওগাঁ প্রতিনিধিঃ এক মাসের অধিক সময় ধরে বৃষ্টি নেই। কোথাও বৃষ্টি হলেও তা ফসলের জন্য পর্যাপ্ত নয়। খরায় আউশ, ধানের মাঠ ফেটে যাচ্ছে। আকাশে মেঘের ভেলা ভেসে বেড়ালেও বৃষ্টির দেখা মিলছে, না। আর মাঝেমধ্যে যে বৃষ্টি হচ্ছে তা দাবদাহের সঙ্গে মিসে যাচ্ছে। পর্যাপ্ত বৃষ্টি না হওয়ায় আউশের মাঠ পুড়ছে। জমি ফেটে চৌচির হতে শুরু করেছে।নওগাঁর

বিভিন্ন উপজেলার মধ্যে নিয়ামতপুর উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের কৃষক শাহিন আলী বলেন, ঠিকমতো বৃষ্টি না হাওয়াই, এভাবে যদি চলে তাহলে তো জমি পড়ে থাকিবে, চাষাবাদ করা যাবে না। বৃষ্টি না হওয়ায় আমন আবাদ নিয়ে শঙ্কায় আছেন চাষীরা।

তিনি আরোও বলেন, যে জমিতে আউশ ধানের চারা লাগানো হয়েছে। সে সব ফসলের মাঠ ফেটে চৌচির হয়ে গিয়েছে। এদিকে আমন ধানের চারাও বড় হয়েছে। পানির অভাবে রোপণ করতে পারছেন না তারা। এ বছরই শুধু নয়, কয়েক বছর ধরেই আবহাওয়া এমন বিড়ম্বনায় ফেলছে।

নিয়ামতপুর উপজেলা শ্রীমন্তপুর ইউনিয়নের কৃষক রানা ইসলাম বলেন, আমন আবাদের জন্য জমিতে চাষ দিয়েছি। কিন্তু এক ফোঁটা পানিও নেই। এ অবস্থায় কিভাবে আমন রোপণ করব, এ নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছি। আবার কেউ কেউ সেচ পাম্পের মাধ্যমে জমিতে সেচ দিয়ে চারা রোপন করছে।

নিয়ামতপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আমীর আবদুল্লাহ ওয়াহিদুজ্জামান বলেন, বেশ কয়েক দিন থেকে অনাবৃষ্টি চললেও আমন চাষের এখনও সময় রয়েছে। তাছাড়া বিকল্প সেচ ব্যবস্থার মাধ্যমে কৃষক ইতিমধ্যে ১০/১৫ ভাগ আমনের চারা রোপণ করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট
error: Content is protected !!